A ঢাকামুন্সিগঞ্জ

মুন্সিগঞ্জ ডায়াবেটিক হাসপাতাল ডাক্তার তালিকা এবং ফোন নাম্বার

মুন্সিগঞ্জ ডায়াবেটিক হাসপাতাল ডাক্তার তালিকা এবং ফোন নাম্বার সহ ডায়াবেটিস রোগীদের চিকিৎসার জন্য যে সকল তথ্যের প্রয়োজন পড়ে সব কিছু রয়েছে আমাদের ওয়েবসাইটে। মুন্সিগঞ্জ ডায়াবেটিক হাসপাতালে ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য সকল চিকিৎসার ব্যবস্থা রয়েছে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের মাধ্যমে। এখানে আধুনিক পদ্ধতির মাধ্যমে ডায়াবেটিকস পরীক্ষানিরীক্ষা করা হয় এবং সঠিকভাবে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। 

বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের মাধ্যমে ডায়াবেটিকস রোগীদের এবং ডায়াবেটিকস থেকে হওয়া যে সকল রোগগুলো রয়েছে সকল রোগের চিকিৎসা এখানে প্রদান করা হয়। ডায়াবেটিস এমন একটি রোগ যেখান থেকে আরও অনেক রকম রোগের সৃষ্টি হয়। কোন মানুষ যদি ডায়াবেটিকস নিয়ন্ত্রণে না রাখে তাহলে সেই মানুষটির শারীরিকভাবে আরও অনেক সমস্যা দেখা দেয় যেমন মাথা ঘুরে পড়ে যাওয়া, অতিরিক্ত পানির পিপাসা, শরীরের দুর্বলতা, শ্বাস নিতে সমস্যা, গায়ে চুলকানি, যেকোনো জায়গা কেটে গেলে সহজে ভালো না হওয়া, স্কিনের প্রবলেম, মাথার চুল উঠে যাওয়া, স্টোক, হার্ট অ্যাটাক সহ নানারকম জটিল রোগের দেখা দেয়। সেজন্য ডায়াবেটিস রোগটির উপর বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে এবং সব সময় নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। 

যে মানুষের একবার ডায়াবেটিস হয়েছে সে আর কখনোই স্বাভাবিক হতে পারে না। যখন মানুষের শরীরের ইনসুলিন কমে যায় তখন ডায়াবেটিস হয় এবং এই ডায়াবেটিস হয়ে গেলে শরীরে ইনসুলিনের জন্য এক্সট্রা ওষুধ বা ইনসুলিন নিতে হয়। ডায়াবেটিস হওয়ার আগে কিছু কিছু লক্ষণ দেখা দেয় যেমন অতিরিক্ত পানি খাওয়া এবং অতিরিক্ত প্রস্রাব করা। এই সকল লক্ষণ ছাড়াও মানুষের খিদা বেড়ে যাবে ওজন কমে যাবে। এ সকল লক্ষণগুলো যখন আপনি বুঝতে পারবেন তখন আপনি ডায়াবেটিকস সেন্টারে যাবেন এবং ডাক্তারের কাছে সঠিকভাবে পরীক্ষানিরীক্ষা করে দেখবেন। 

অনেক সময় অনেক মানুষ এই সকল লক্ষণগুলো গুরুত্ব দেয় না এবং স্বাভাবিকভাবেই জীবন যাপন চলাতে থাকে কিন্তু ডায়াবেটিস যখন বেশি হয়ে পড়ে তখন মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ে। যে সকল মানুষের অতিরিক্ত ডায়াবেটিস যারা নিয়ন্ত্রণ করেনা তাদের ডায়াবেটিস বৃদ্ধি পেয়েও নানা রকম সমস্যার সৃষ্টি হয় যেমন স্ট্রোক হার্ট এটাক হতে পারে। আবার ডায়াবেটিস যদি একেবারে নীল হয়ে যায় তখনও মানুষ মারা যায় সেজন্য ডায়াবেটিকস নিয়ন্ত্রণে রাখা খুবই বেশি প্রয়োজন এটা বেশি বাড়তি নেয়া যাবে না এবং বেশি কমতি দেয়া যাবে না। 

তাই আপনাকে ডায়াবেটিস সম্পর্কে সঠিক তথ্য গুলো জানতে হবে এবং এটা নিয়ন্ত্রণে রাখার ব্যবস্থা করতে হবে। ডায়াবেটিকস রোগীরা কিন্তু হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়তে পারে মাথা ঘুরে পড়ে যেতে পারে সেজন্য আপনাকে সবসময় ডায়াবেটিক সেন্টার বা ডাইবেটিস হাসপাতালে হট লাইন নাম্বার এবং ডাক্তারদের সাথে যোগাযোগ নাম্বার রাখতে হবে। তাহলে হঠাৎ করে কোন মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়লে আপনি খুব তাড়াতাড়ি ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন পরামর্শ গ্রহণ করতে পারবেন এবং ডায়াবেটিস রোগীকে সুস্থ করে তুলতে পারবেন। আপনাদের সুবিধার জন্য আমাদের এই আয়োজনটি করা।

ডাক্তারের তালিকা

মুন্সিগঞ্জ ডায়াবেটিক হাসপাতালটি সকাল 9 টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। আপনারা ডায়াবেটিস সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা সহ অন্য যেকোনো সমস্যা নিয়ে এই হাসপাতালে আসলে চিকিৎসা পেয়ে যাবেন। এখানে রয়েছে উচ্চ রক্তচাপ এবং নিম্ন রক্তচাপের জন্য বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের মাধ্যমে চিকিৎসার ব্যবস্থা। 

এছাড়াও জ্বর সর্দি কাশি থেকে শুরু করে প্রাথমিক যে কোন চিকিৎসার জন্য এখানে আসলে আপনারা সঠিকভাবে চিকিৎসা পেয়ে যাবেন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের মাধ্যমে। অনেক সময় মানুষের ডায়াবেটিস বৃদ্ধি থাকার কারণে যেকোনো ধরনের অপারেশন হয় না। তাই আপনারা এই হাসপাতালে ভর্তি থেকে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে এনে অপারেশন করতে পারবেন তার ব্যবস্থা হয়েছে। 

ডাক্তারের ফোন নাম্বার

মুন্সিগঞ্জ ডায়াবেটিক হাসপাতালে সকল ফোন নাম্বার এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের সাথে যোগাযোগের জন্য হট লাইন নাম্বার রয়েছে আমাদের ওয়েবসাইটে এখান থেকে আপনারা সকল ডাক্তারদের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন।আপনারা যদি এই হাসপাতালে যান আপনাকে কিছু মেডিসিন এবং গাইড বই দেয়া হবে। এই গাইড বইয়ের মধ্যে কিছু নিয়মনীতি থাকবে কিভাবে আপনাকে জীবনযাপন করতে হবে কোন খাবারটা কখন খেতে হবে এবং কোন খাবারটা খাওয়া যাবেনা। 

যখন আপনি খাবারদাবার নিয়ন্ত্রণ করবেন এবং ডাক্তারের পরামর্শ মত চলবেন তখন আপনি সুস্থ হতে পারবেন তাছাড়া ডায়াবেটিস রোগীরা সহজে সুস্থ হতে পারেনা। ডায়াবেটিকস থাকলে অনেক সময় মানুষের জটিল ও কঠিন রোগের চিকিৎসা প্রদান করা সম্ভব হয় না। তাই আপনারা ডায়াবেটিকস রোগ নিয়ে ঘরে বসে থাকবেন না এবং অনিয়ম করে চলবেন না তাহলে জীবনের ঝুঁকি বেড়ে যায়। সব সময় চেষ্টা করবেন সুষ্ঠু চিকিৎসা গ্রহণ করে সুস্থ থাকার।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত লেখা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *