ওষুধের ব্যবহার

ambrox সিরাপ এর কাজ কি

Ambrox সিরাপের কাজ সম্পর্কে আজকে আপনাদের জানানোর জন্য আমাদের এই আয়োজনটি করেছি। তার জন্য আপনাকে আমাদের ওয়েবসাইটের এই লেখাগুলো মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে তাহলে আপনারা সকল তথ্য পেয়ে যাবেন যেগুলো জানা আপনাদের খুবই বেশি দরকার। এমবক্স সিরাপ সাধারণত কাশির চিকিৎসার জন্য ব্যবহার করা হয় এবং এটি সর্দি থাকলে তা ভালো করে এবং কাশি বের করার সহজ করে তোলে। এই ওষুধটি গলার জ্বালা থেকে মুক্তি দেয় এবং শীতল অনুভূতি প্রদান করেন। 

এই ওষুধের তেমন কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই তবে মাঝেমধ্যে কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে সেজন্য আপনাদের সতর্ক থাকতে হবে। যেমন নাক কান চুলকাতে পারে ধুলাবালিতে গেলে হাঁচি হতে পারে আবার মুখ চুলকাতে পারে অনেক সময় এলার্জিক সমস্যা থাকলে তা নতুন ভাবে জাগ্রত হতে পারে সেজন্য একটু সতর্ক থাকতে হবে এবং নিয়ম করে ওষুধ সেবন করতে হবে। এই ওষুধ খাওয়ার কিছু নিয়ম রয়েছে এবং এই সকল ওষুধ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ফুল রোজ সেবন করতে হয়। ওষুধ খাওয়ার নিয়ম গুলো হলো শূন্য থেকে ছয় মাসের শিশুদের জন্য 0.5 মিলি দিনে দুইবার সেবনযোগ্য। 

ছয় থেকে এক বছর পর্যন্ত এক মিলি দিনে দুইবার খেতে হবে। এক থেকে দুই দুই বছর পর্যন্ত ২.৫ মিলি দিনে দুই থেকে তিনবার সেবন করতে হবে। আজ থেকে দশ বছর বয়স পর্যন্ত ৫ মিলি বা এক চামচ দিনে দুই থেকে তিনবার সেবনযোগ্য।তবে এই সকল ওষুধ গুলো আপনাকে ফুল ডোজ এবং নিয়ম করে খেতে হবে তা না হলে ওষুধগুলো সঠিকভাবে কাজ করবে না। আপনি যদি একটি ডোজ খেতে ভুলে যান এবং পরে যদি মনে পড়ে তাহলে সাথে সাথে সেটি খেয়ে ফেলতে হবে তবে একটি বিষয় মাথায় রাখবেন দ্বিতীয় সময় যদি হয়ে যায় তাহলে আর সেই দোষটি খেতে হবে না পরের ডোজ খেতে হবে। 

আরেকটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে সেটা হলো আপনার স্বাভাবিক রোজ সময়সূচি পুনরায় শুরু করুন ডোজ দ্বিগুণ করবেন না তাতে আপনার ক্ষতি হতে পারে এবং পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। এই সকল বিষয়গুলো সব সময় খেয়াল রাখতে হবে যে কোন ওষুধ খাবার সময়। অনেক মানুষ আছে যারা ভুল করে এক ডোজ মিস হয়ে গেলে পরের সাথে খেয়ে ফেলে যেটা তাদের ক্ষতি করে। আপনার যদি মনে হয় আপনি ওভার ডোজ নিয়ে ফেলেছেন তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ডাক্তারের কাছে যেতে হবে এবং সমস্যার কথা খুলে বলতে হবে। আমব্রোক্স ওষুধ আপনি যে সকল বিষয়গুলোতে ব্যবহার করতে পারবেন বা সেবন করতে পারবেন। 

তামার দ্রব্য সেবনের ফলে যে কাশি হয় তীব্র কাশি সহ এবং দীর্ঘস্থায়ী মেয়াদের ব্রংকাইটিস সহ আরো নানারকম সমস্যার জন্য আপনি এই সিরাপটি ব্যবহার করতে পারবেন বা ডাক্তার ব্যবহার করতে পরামর্শ দিয়ে থাকেন।এই ওষুধটি আপনি কর যুক্ত কাশি ফুসফুসের প্রবাহ ব্রঙ্কিয়াল অ্যাজমা নিউমোনিয়া সহ ভাইরাসজনিত যেকোনো সমস্যায় ব্যবহার করতে পারবেন। তবে এই সিরাপ ব্যবহারের পূর্বে আপনাদের কিছু তথ্য জেনে রাখা ভালো যাদের দীর্ঘদিন ধরে কাশি থাকে তাদের চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত। আপনার হাঁপানি বা অ্যাজমা অ্যাটাক থাকলে গ্রহণ করবেন না বা চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী নিতে হবে। 

আপনার যদি লিভারের সমস্যা থাকে তবে এটি সম্পূর্ণ আপনার ডাক্তারের সাথে কথা বলুন কিডনির সমস্যা থাকলে ডাক্তারের পরামর্শ নিন। এ সকল সমস্যাগুলো থাকলে আমব্রোক্স সিরাপটি গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকতে হবে বা সতর্ক হতে হবে। এই সিরাপটির বেশি দাম নয় তাই আপনি যেকোনো সময় ক্রয় করতে পারবেন এবং সকল ফার্মেসিতে পেয়ে যাবেন। এই ওষুধটি অনেক বেশি কার্যকরী একটি ঔষধ এই ধরনের যেকোনো সমস্যার জন্য আপনি সেবন করলে খুব দ্রুত কাজ করে তাই মানুষ এটা বেশ ব্যবহার করে।একটি বিষয় মাথায় রাখবেন যে কোন ওষুধ সেবনের আগে তার মেয়াদ আছে কিনা এটা সব সময় দেখে নিবেন যদি আপনি মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ সেবন করেন তাহলে আপনার নানা রকম সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে সেজন্য সতর্ক থাকুন।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত লেখা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *