ওষুধের ব্যবহার

বাচ্চাদের টোফেন সিরাপ এর কাজ

যখন বাচ্চারা অসুস্থ হয়ে পড়ে যেমন তাদের শ্বাসকষ্ট ঠান্ডা লাগা কাশির জন্য টোফেন সিরাপ খাওয়ানো হয়। টোফেন সিরাপ খাওয়ার ফলে বাচ্চাদের এই সকল সমস্যাগুলো ভালো হয়ে যায়। একটি বাচ্চা যখন অসুস্থ হয়ে পড়ে তখন নানা কারণেই হতে পারে এবং তার অসুস্থ হওয়ার লক্ষণগুলো বড়দের বুঝে নিতে হয় কারণ তারা ভালোমতো বলতে পারেনা কোথায় তাদের সমস্যা হচ্ছে। 

এইজন্য বাচ্চাদের প্রতি বিশেষ নজর দিতে হয় এবং তাদের যেকোনো সমস্যার জন্য গুরুত্ব দিতে হবে। বাচ্চাদের ঠান্ডা লাগা সমস্যার জন্য টোফেন সিরাপটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যখনই আপনি বুঝতে পারবেন আপনার বাচ্চার ঠান্ডা লেগেছে বা শ্বাসকষ্ট হচ্ছে তখন যদি আপনি ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী টোফেন সিরাপ আপনার বাচ্চাকে খাওয়ান তাহলে দেখবেন খুব তাড়াতাড়ি সে সুস্থ হতে পারবে। তবে ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া এ সকল ওষুধ সেবন থেকে দূরে থাকবেন কারণ বাচ্চাদের বিষয় কোথায় থেকে কি হয়ে যায় সেজন্য সতর্ক থাকতে হবে। 

প্রতিটা ওষুধেরই কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে সেজন্য ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া যদি আপনি ওষুধ খাওয়ান তাহলে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার ফলে আপনার বাচ্চার সমস্যা দেখা দিতে পারে। অনেক সময় এলার্জির জন্য প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষও টোফেন খেয়ে থাকে কারণ এলার্জির জন্য এটা খুব ভালো ওষুধ।অনেকেই আছে বাচ্চাদের অসুখের ধরন না বুঝে যেকোন ওষুধ খাওয়ায় বা অন্য মানুষের কথা শুনে ওষুধ কিনে নিয়ে এসে খাওয়ায় তবে এটা অনেক বড় ভুল। 

আপনার সন্তানের যে কোন সমস্যার জন্য আপনি ডাক্তারের কাছে যান এবং ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী আপনি ওষুধ খাওয়ান। যেকোনো ধরনের ঠান্ডা লাগার সমস্যার জন্য আপনি টোফেন খাওয়াতে পারেন এবং যখন দেখবেন আপনার বাচ্চার শ্বাসকষ্ট হচ্ছে ঠান্ডার জন্য সে নিঃশেষ নিতে পারছে না তখন আপনি টোফেন সিরাপ খাওয়াতে পারেন। টোফেন ওষুধ খাওয়ানোর ফলে আপনার বাচ্চার সর্দিও একদম ভালো হয়ে যাবে সেই জন্য আপনি আপনার বাচ্চার যে কোন ধরনের ঠান্ডা লাগা সমস্যার জন্য টোফেন নিয়মিত খাওয়াতে পারেন। 

তবে আপনার বাচ্চা অসুস্থ হবার পরে ডাক্তার তাকে যে নিয়মের টোফেন ওষুধ খেতে বলবে আপনি সেভাবেই টোফেন সিরাপটি আপনার বাচ্চাকে খাওয়াবেন তাহলেই তাড়াতাড়ি সুস্থ হতে পারবে। ছোট বাচ্চাদের নানা কারণে অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং তাদের একটু অনিয়ম হলে ঠান্ডা লেগে যায় এবং এই ঠান্ডা তাদের এতটা কষ্ট দেয় যে তাদের অবস্থা অনেক খারাপ হয়ে যায়। ঠান্ডা লাগা থেকে বাচ্চাদের নিউমোনিয়া হয়ে যেতে পারে আর নিউমোনিয়া হয়ে গেলে তখন আরো বেশি পেরেশানির মধ্যে পড়তে হয় সেজন্য আপনার বাচ্চাদের প্রতি বিশেষ নজর দিবেন এবং একটু অসুস্থ হলেই আপনি ডাক্তারের কাছে যাবেন বা ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী তাকে ওষুধ খাওয়াবেন। 

তবে আপনার হাতের কাছে যদি টোফেন সিরাপটি থাকে তখনই আপনি আপনার বাচ্চাকে দিতে পারেন তাহলে দেখবেন তার ঠান্ডা লাগা ভাবটা চলে গেছে। টোফেন সিরাপটি আপনি প্রতিটা ফার্মেসিতে পাবেন যার জন্য আপনাকে হয়রানি হতে হবে না। যেকোনো ফার্মেসিতে গেলে আপনি খুব অল্প টাকায় টোফেন সিরাপটি পেয়ে যাবেন। তবে অতিরিক্ত কোন ওষুধ সেবন করা উচিত নয় তাহলে সেটার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকে আর ও নানা রকম রোগের সৃষ্টি হয় সেজন্য আপনার বাচ্চাকে সঠিক পরিমাণের ওষুধ খাওয়াতে হবে যেকোনো সমস্যার জন্য। 

টোফেন সিরাপ এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার ফলে মানুষের এলার্জি বৃদ্ধি পেতে পারে মাথা ব্যথা হতে পারে আরো নানারকম সমস্যা হতে পারে সেজন্য সতর্ক থাকতে হবে এবং ছোট বাচ্চাদের প্রতি ডাক্তারের পরামর্শ অবলম্বন করতে হবে।আপনাদের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বলে দেই যে কোন ওষুধ খাওয়ানোর আগে সবসময় তার মেয়াদ দেখবেন কারণ আপনি যদি না দেখে মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ আপনার বাচ্চাকে খাওয়ান তাহলে আপনার বাচ্চার অনেক বড় ক্ষতি হয়ে যাবে সেই জন্য ওষুধ সেবনের আগে তার মেয়াদ অবশ্যই দেখবেন। এই বিষয়টা সবার নজরে থাকা অনেক বেশি প্রয়োজন সেজন্য সতর্ক থাকতে হবে এবং সুস্থ থাকতে হবে।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত লেখা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *