AA রক্ত সংক্রান্ত

সর্দির সাথে রক্ত আসার কারণ কি? জেনে নিন পরামর্শ

অনেক সময় সর্দির সাথে রক্ত আসে এইটা নিয়ে মানুষ নানা রকম চিন্তায় পড়ে যায় আবার কিছু মানুষ আছে যারা গুরুত্ব দিতে চায় না। তবে যখনই আপনাদের সর্দির সাথে রক্ত আসবে তখন আপনাদের ডাক্তারের পরামর্শ নেয়া উচিত বা ডাক্তারের কাছ থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করা প্রয়োজন। বেশিরভাগ সময় শীতে মানুষের ঠান্ডা লেগে সর্দি হয় এবং সেই সর্দির সাথে রক্ত আসে। 

সর্দি যে শুধু শীতে হয় এমনটা নয় অনেক সময় মানুষ অসুস্থ পড়লে বা ঠান্ডা লেগে জ্বর হলে তখন মানুষের সর্দি হয়। এক এক মানুষের একেক রকম সমস্যা হয় তবে বিশেষজ্ঞদের মতে শীতে নাক দিয়ে রক্ত পড়ার অন্যতম কারণ হলো বাতাসের আদ্রতা কমে যাওয়া। বাতাসের আদ্রতা কমে গেলে নাকের ভেতরের পাতলা ত্বক ফেটে যায়। নাকের ভেতরে পাতলা ত্বকের একবারে নিচের তলাতেই থাকে রক্ত জালিকা। যখন ওই পর্দাটি ফেটে যায় তখন রক্ত জালিকা থেকে রক্তপাত শুরু হয়। 

আর তখনই নাক দিয়ে রক্ত পড়া শুরু হয়। আর অনেক সময় মানুষের যখন সর্দি হয় তখন তারা নাকের উপরে বেশ প্রেসার দেয় এবং যাদের নাকের সেই পাতলা আবরণ অনেক বেশি পাতলা তাদের সর্দির পেশা দেয়ার সাথে সাথেই সেটা ফেটে যায় এবং রক্তপাত শুরু হয়। যতবারই তার সর্দি হবে এবং সে নাকের উপরে প্রেসার দেবে ততবারই তার নাক দিয়ে রক্ত বের হতে থাকবে সর্দির সাথে। তবে এটা নিয়ে চিন্তার কোন কারণ নেই এটা যদি আপনি ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা নেন তবে খুব তাড়াতাড়ি ভালো হয়ে যাবে। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী আপনার কে চলতে হবে এবং ঠান্ডা লাগা থেকে আপনাকে দূরে থাকতে হবে। 

কিছু কিছু মানুষ এই সকল বিষয় গুরুত্ব দিতে চাই না এবং তার যতবার সর্দি হয় ততবারই রক্ত পড়তে থাকে পরে সে ভাবে তার ক্যান্সার বা অন্য কোন কঠিন রোগ হয়েছে এবং সে তখন চিকিৎসার জন্য এদিকে সেদিকে ছুটাছুটি করে। যখনই আপনাদের এরকম কোন সমস্যা দেখা দেবে সর্দির সাথে রক্ত পড়া বা নাক দিয়ে রক্ত পড়া তখনই আপনাকে ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে। কারণ যতবারই আপনি নাকে হাত দিবেন ততবারই সর্দির সাথে আপনার রক্ত আসবে তাতে আপনার শরীর থেকে কিছু রক্ত বের হয়ে যাবে সেজন্য আপনাকে সবসময় সতর্ক থাকতে হবে। 

মানুষের এই অসাবধানতা এবং অসচেতনতার কারণেই শারীরিকভাবে নানা রকম ক্ষতিগ্রস্ত হতে থাকে। অনেক মানুষ আছে এই সকল বিষয়ে সঠিকভাবে কিছু জানেই না। তাই আমরা আপনাদের উপকারের জন্য আমাদের এই আয়োজনটি করেছি আপনারা আমাদের ওয়েবসাইটে এসে এ সকল তথ্যগুলো সংগ্রহ করতে পারেন এবং যখনই আপনার এরকম কোন সমস্যা দেখা দিবে তখনই আপনি ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করবেন। 

আবার আপনার আশেপাশের কারো যদি এমন কোন সমস্যা হয়ে থাকে তখন আপনি তাদের সাথে এই বিষয়ে আলোচনা করতে পারবেন এবং তাদের কিছু পরামর্শ দিতে পারবেন। সেজন্য আপনাকে চলে আসতে হবে আমাদের ওয়েবসাইটে এবং এই সকল তথ্যগুলো সংগ্রহ করতে হবে।অনেক সময় মানুষের অতিরিক্ত হাঁচি হয় এবং এই হাঁচির মাধ্যমেও তাদের নাকের সেই পাতলা ত্বকটি ফেটে যেতে পারে তাই যখন কারো হাঁচি হবে তখন একটু সাবধানে আসতে হাঁচি দেয়ার চেষ্টা করতে হবে। 

আবার মানুষের নাকের ক্যান্সার বা রক্ত জমাট বাধার মত জটিল সমস্যা দেখা দিলেও রক্ত বের হতে পারে। তাই আপনাদের এই সকল বিষয়ে অবহেলা না করে যত দ্রুত সম্ভব ডাক্তারের কাছে গিয়ে চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে কারণ কিছু কিছু লক্ষণ দেখা দেয় যেগুলো ফলো না করলে জীবনে অনেক বেশি ক্ষতি হয়ে যায়। তাই বর্তমান এই আধুনিক যুগে আপনিও হয়ে উঠুন আধুনিক এবং যেকোনো সমস্যার জন্য সঠিক তথ্য সংগ্রহ করে ঘরে বসে না থেকে যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসা গ্রহণ করুন সুস্থ থাকুন নিরাপদে থাকুন।

আরো দেখুন

সম্পর্কিত লেখা

Leave a Reply

Your email address will not be published.