A বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

থাইরয়েড বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ঢাকা তালিকা মোবাইল নাম্বার ও চেম্বারের ঠিকানা

থাইরয়েড বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের চেম্বারের ঠিকানা এবং মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করতে আপনারা একেবারেই সঠিক জায়গায় এসেছেন। আমাদের এখান থেকে বাংলাদেশের সেরা সেরা থাইরয়েড বিশেষজ্ঞ যারা ঢাকাতে কর্মরত আছেন এবং ঢাকার নাম করা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিজের চেম্বার করে রেখেছেন তাদের একটি তালিকা আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি।

এই তালিকা থেকে আপনারা আপনাদের পছন্দ অনুযায়ী যে কোন একজন থাইরয়েড বিশেষজ্ঞ ডাক্তারকে দেখাতে পারেন যারা কিনা আপনার রোগের চিকিৎসা করবে। থাইরয়েড রোগ অত্যন্ত সাংঘাতিক একটি রোগ এবং আপনি যদি সঠিক সময়ে সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ না করেন তাহলে থাইরয়েড থেকে ক্যান্সারের জীবাণু আপনার রক্তে সরিয়ে যেতে পারে। তাই যেকোনো রোগকে ছোট না মনে করে চেষ্টা করুন সব সময় এই রোগের প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে।

সাধারণত হরমোনাল সমস্যা থেকে থাইরয়েড এর সৃষ্টি হয় এবং অনেক সময় থাইরয়েড এবং গলগন্ড রোগ একই ধরনের হয়ে যায়। আপনারা যারা এই ধরনের রোগে দীর্ঘদিন ধরে ভুগছেন তারা অবশ্যই অনেক বেশি কষ্টে আছেন। থাইরয়েড রোগীদের ক্ষেত্রে নিয়মিত চিকিৎসার প্রয়োজন রয়েছে এবং যদি সময় মত চিকিৎসা গ্রহণ করা যায় তাহলে ওষুধের মাধ্যমে এই রোগ নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

আপনি যদি চিকিৎসা গ্রহণ করতে দেরি করেন তাহলে আপনার থাইরয়েড বৃদ্ধি পাবে এবং এর ফলে আপনার কন্ঠনালীতে ইনফেকশন হতে পারে। থাইরয়েড থেকে গলার নিচে টিউমার হওয়ার সম্ভাবনা আছে যেটা অনেক কষ্টকর একটি ব্যাপার এবং বাইরে থেকে দেখতেও খুব বেশি খারাপ লাগে। এ টিউমার আস্তে আস্তে বড় হতে থাকে যা একসময় প্রাণভাতী ক্যান্সারে রূপান্তর হয় তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের এখান থেকে ঢাকার বড় বড় থাইরয়েড বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের ঠিকানা সংগ্রহ করে জরুরী ভিত্তিতে তাদের কাছে নিজের রোগ নিয়ে পরামর্শ করুন।

থাইরয়েড ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ঢাকা এর চেম্বারে ঠিকানা

বাংলাদেশের রাজধানী হচ্ছে ঢাকা এবং ঢাকা শহর বিশ্বের সবথেকে বেশি পরিচিত একটি শহর বাংলাদেশের পক্ষ থেকে। ঢাকা শহরে কি না পাওয়া যায় টাকা থাকলে যেমন অনেকেই বলে চাঁদের দেশে মাটি কিনতে পাওয়া যায় ঠিক তেমন টাকা থাকলে ঢাকা শহরে সব কিছুই পাওয়া যায়।

তবে এই সবকিছু পাওয়ার ভিড়ে আপনাকে চোখ কান খোলা রাখতে হবে তার কারণ হলো সেখানে রয়েছে বিপুল পরিমাণে লোক ঠকানোর পদ্ধতি। হরমোন বা থাইরয়েড বিশেষজ্ঞ ডাক্তারকে দেখাতে গিয়ে আপনি যদি এমন কাউকে দেখান যিনি থাইরয়েড বিষয়ে কিছুই জানেন না তাহলে অবশ্যই আপনার ক্ষতি হবে।

এখন হয়তো আপনাদের মনে চিন্তা হতে পারে এই সকল থাইরয়েড বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সঠিক ঠিকানা তাহলে কোথায় পাওয়া যাবে? এই প্রশ্নের উত্তর পাবেন আমাদের এই আর্টিকেলে যেখানে থাইরয়েড বিশেষজ্ঞের তালিকা আমরা তৈরি করেছি।

সহকারী অধ্যাপক ডাঃ সত্যজিৎ মল্লিক

এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এমডি (এন্ডোক্রাইনোলজি ও মেটাবলিজম), সহকারী অধ্যাপক -চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, চট্রগ্রাম।
ডায়াবেটিস, থাইরয়েড ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ | মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
ঠিকানা  এপিক হেলথ কেয়ার, চট্রগ্রাম।

ডাঃ এ এস এম তাওহীদুল আলম
এমবিবিএস, এমসিপিএস, এমডি, এমআরসিপি, পিএইচডি -মেডিসিন, ডায়াবেটিস ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ।
ডায়াবেটিস, থাইরয়েড ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ | মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
ঠিকানা  এপিক হেলথ কেয়ার, চট্রগ্রাম।

ডাঃ মোঃ রাশিদুল হাসান
এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এফসিপিএস (মেডিসিন), এমআরসিপি (ইউকে) – স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল, ঢাকা
ডায়াবেটিস, থাইরয়েড ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ | মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
ঠিকানা  হেলথ ল্যাবস লিঃ ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টার, মিরপুর, ঢাকা।

Thyroid specialist doctor in Dhaka Banglades

সবার প্রথমে একজন ডাক্তারের সবথেকে বড় দায়িত্ব হল রোগীর রোগ নির্ণয় করা। রোগ নির্ণয় সঠিকভাবে হলে সেই রোগের সুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা সব থেকে বেশি হয়। আপনাদের সহজ ভাষায় বোঝাচ্ছি।

মনে করুন আপনার জ্বর হয়েছে এবং সেটা নির্ণয় করা গেল এবং তার জন্য আপনাকে প্যারাসিটামল অথবা জরের অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ দিলেন ডাক্তার। ডাক্তাররা জানেন কোন রোগের কোন ওষুধ দিলে ঠিক হবে কিন্তু এই জ্বর যদি প্রথমে নির্ণয় না করে সেই জ্বর থেকে জন্ডিস হতো তাহলে অবশ্যই আপনি ভুল চিকিৎসা পেতেন। ঠিক এমন সঠিক চিকিৎসা পেতে সব সময় বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছে যাবেন তার কারণ হলো তারাই কেবলমাত্র সঠিক রোগ নির্ণয় করতে পারে।

সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ মোহাম্মদ আফজাল হোসেন
এমবিবিএস (ডিএমসি), এমডি (এন্ড্রোক্রাইনোলজি), সিসিডি (বারডেম)। সহযোগী অধ্যাপক (মেডিসিন ও এন্ড্রোক্রাইনোলজী বিভাগ)- ইউএস বাংলা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল।
ডায়াবেটিস বিশেষজ্ঞ | ডায়াবেটিস, থাইরয়েড ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ | মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
চেম্বার সময়সূচী
ঠিকানা  সাউথ ইস্ট মডেল হাসপাতাল, ঢাকা।
রবিবার দুপুর ৩:০০টা হতে বিকাল ৫:০০টা
 মঙ্গলবার দুপুর ৩:০০টা হতে বিকাল ৫:০০টা
 বৃহস্পতিবার দুপুর ৩:০০টা হতে বিকাল ৫:০০টা

সহকারী অধ্যাপক ডাঃ জোবায়দা নাজনীন
এমবিবিএস, এমডি (এন্ডোক্রাইনোলজি)। মেম্বার আমেরিকান এসোসিয়েশন অফ ক্লিনিক্যাল এন্ড্রোক্রাইনোলজি। ডায়াবেটিক, থাইরয়েড ও হরমোন বিশেষজ্ঞ। সহকারী অধ্যাপক (এন্ড্রোক্রাইনোলজি)- শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ শের-ই-বাংলা নগর, ঢাকা।
ডায়াবেটিস, থাইরয়েড ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ
চেম্বার সময়সূচী
ঠিকানা  ডেল্‌টা হেল্‌থ কেয়ার, মিরপুর লিমিটেড
বুধবার   বিকাল ৪:৩০টা হতে বিকাল ৫:৩০টা

অধ্যাপক ডাঃ আ হ ম আখতারুজ্জামান
এমবিবিএস(ঢাকা), এমসিপিএস (মেডিসিন), এমডি (এন্ডোক্রাইনোলজি) বারডেম। অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান (এন্ডোক্রাইনোলজি বিভাগ)- রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল।
ডায়াবেটিস, থাইরয়েড ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ
ঠিকানা  ডিজিল্যাব মেডিকেল সার্ভিসেস লিঃ, ঢাকা

সহকারী অধ্যাপক ডাঃ মোঃ সাহাদাত হোসেন
এমবিবিএস (ঢাকা), বিসিএস (স্বাস্থ্য), এফসিপিএস (মেডিসিন), এ্যাডভান্সড ট্রেনিং অন রিউমাটোলজি এন্ড এন্ডোক্রাইনোলজি কনসালটেন্ট, সহকারী অধ্যাপক (মেডিসিন) – শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, বরিশাল।
এ্যজমা, যক্ষা ও বক্ষব্যাধী বিশেষজ্ঞ | ডায়াবেটিস বিশেষজ্ঞ | ডায়াবেটিস, থাইরয়েড ও হরমোন রোগ বিশেষজ্ঞ | মেডিসিন বিশেষজ্ঞ | বাত ব্যাথা প্যারালাইসিস ও স্পাইন রিহ্যাব বিশেষজ্ঞ
ঠিকানা  ল্যাবএইড লিমিটেড (ডায়াগনস্টিক), বরিশাল।

The thyroid centre limited Bangladesh

থাইরয়েডের হরমোন জনিত রোগীর সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে মূলত এই প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করা হয় এবং বাংলাদেশের প্রথম পর্যায়ে বেসরকারি ২০০৭ সালে ৫ই জানুয়ারি থেকে অফিসিয়াল ভাবে এই প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হয়। শুধুমাত্র যে চিকিৎসা প্রদান করবে এমন নয় এই প্রতিষ্ঠান চিকিৎসা প্রদানের পাশাপাশি এই সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিতে অনেক কার্যক্রম গ্রহণ করে। থাইরয়েড সেন্টার এর বর্তমান প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ডাক্তার তানিয়ার রহমান বাংলাদেশের প্রথম থাইরয়েড সেন্টার প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে এই থাইরয়েড সেন্টার এর প্রায় ৫০০০ নিয়মিত সদস্য রয়েছে যারা নিয়মিত এই সেন্টারের পক্ষ থেকে চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি তথ্য সংগ্রহ করেন।

থাইরয়েড সংক্রান্ত রোগসমূহঃ 
১. হাইপোথাইরয়েডিজম (Hypothyroidism) 
২. হাইপারথাইরয়েডিজম (Hyperthyroidism) 
৩. থাইরয়েডের সকল প্রকার ক্যান্সার সমূহ 
৪. থাইরয়েডের প্রদাহ সংক্রান্ত রোগ (Thyroiditis)

দি থাইরয়েড সেন্টার এর কার্যক্রম

সাধারণত মানুষকে আয়োডিনের প্রয়োজনীয়তা ও থাইরয়েডের রোগ সম্পর্কে সচেতন করাই হচ্ছে এর প্রধান কাজ।

থাইরয়েড হরমোন জনিত রোগ এর কি ধরনের সমস্যা হতে পারে ও তো আর প্রতিকার এবং প্রতিরোধ সম্পর্কে সচেতন গড়ে তোলা।

থাইরয়েড রোগসমূহ চিকিৎসা প্রদান করা।

যারা থাইরয়েড বিষয়ের ডাক্তার আছে তাদের বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিষয়ের উপর ট্রেনিং প্রদান করা।

থাইরয়েডের পাশাপাশি হরমোন জনিত বিভিন্ন সমস্যার জন্য বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসা সেবা প্রদান করা।

এই প্রতিষ্ঠানে আপনি থাইরয়েডের রোগ নির্ণয়ের জন্য অধীর যন্ত্রপাতিস সহ কম্পিউটার ল্যাব পেয়ে যাবেন।

বাংলাদেশের প্রথম বেথামুক্ত সুঁই ফোটানো ছাড়া আলট্রাসনোগ্রাম এর মাধ্যমে ক্যান্সার নির্ণয় যাতে ইলেকট্র কেন বলা হয় এটাই পেয়ে যাবেন আপনি থাইরয়েড সেন্টারে।

অধ্যাপক ডাঃ এ. কে. এম. ফজলুল বারী 
থাইরয়েড মেডিসিন, ইন্টারভেনশনাল বিশেষজ্ঞ, নিনমাস, বিএসএমএমইউ (পিজি হসপিটাল) 
নিয়মিত রোগী দেখেন
সময়ঃ বিকাল ৬:০০ থেকে সন্ধ্যা ৯:০০ টা পর্যন্ত

 

আরো দেখুন

সম্পর্কিত লেখা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *